দেয়াল // নারায়ণ চন্দ্র বর্মা

দেয়াল কখনও ডিঙাতে পারিনি আমি
অফুরন্ত শক্তি দিয়ে
অনেক বার চেষ্টা করেছি
কিন্তু আমার প্রতিবন্ধক অনড় দেয়াল
ক্রমান্বয়ে প্রলম্বিত হয়ে
অভ্রভেদী এক হিমাচলে উন্নীত হয়েছে
আকাশছোঁয়া সেই দুর্লঙঘ্য দেয়াল
আমি আজও ডিঙাতে পারিনি

জীবনের উষালগ্নে একলব্যের মত
একনিষ্ঠ সাধনায় নিমগ্ন থেকেও
ব্রহ্মচর্যের বিমূর্ত দেয়াল
আমি অতিক্রম করতে পারিনি ।
বর্ণাঢ্য যৌবনে
সসাগরা ধরিত্রীর এক প্রান্ত থেকে
আরেক প্রান্তে উদভ্রান্তের মত ছুটে গিয়েও
আমি পারিনি আমার জীবনকে রাঙাতে ।

হৃদয় নিংড়ানো ভালবাসায়
যার উষ্ণ সান্নিধ্যের জন্য
আমি তীর্থের কাকের মতোই
অধীর আগ্রহে প্রতীক্ষা করেছি
প্রণয়কে পরিহাস করে
সেই সুজন আমার সুকৌশলে গড়ে তুলেছে
বিচ্ছিন্নতার এক মনস্তাত্ত্বিক দেয়াল

আজ আমার সামনে দেয়াল
পেছনে দেয়াল
দিগন্ত প্রসারী সর্বমুখী দেয়ালে আচ্ছাদিত
আমার সমস্ত স্বপ্ন
সুকঠিন নিগড়ে বাঁধা আমার সমস্ত সুখ ।

অন্তহীন দেয়ালের নির্দয় নিষ্পেষণে
আমি আর্তনাদ করে উঠি
অবরুদ্ধ অচলায়তন বিদীর্ণ করে
অবাধ বিশ্বে আত্মপ্রকাশের জন্য
আমি আজ প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হই ।

যে দেয়াল কেড়ে নিয়েছে
আমার লালিত স্বপ্ন,
যে দেয়াল রুদ্ধ করেছে
আমার অমিত সম্ভাবনা,
যত দৃঢ়ই সে দেয়াল হোক না কেন
আত্মপ্রত্যয়ের লক্ষকোটি শাবল দিয়ে
সে দেয়াল আমি ভাঙবই ।

  •  ঢাকা